মোট দেখেছে : 58
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

গৃহবধুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা, স্বামী ও শাশুড়ি গ্রেফতার

সৃষ্টি ডেস্কঃ


বরিশালের উজিরপুরে রিমা বেগম(২৪) হত্যার অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় তার স্বামী ও শাশুড়িকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা। সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে উজিরপুর থানাধীন শিবপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো নিহত রিমা বেগমের স্বামী ও উজিরপুর থানাধীন শিবপুর এলাকার মান্নান বেপারীর ছেলে মিজান বেপারী (২৮) ও মান্নান বেপরীর স্ত্রী মোসাঃ আকলিমা বেগম (৫০) ।

মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব-৮।

র‌্যাব মৃতের স্বজন ও মামলার বরাত দিয়ে জানয়, মোঃ মিজান বেপারীর সাথে ৭ বছর পূর্বে রিমা বেগমের ইসলামী শরিয়াত মোতাবেক বিবাহ হয়। বিবাহের পর থেকে মোঃ মিজান বেপারী এবং তার পরিবারের লোকজন যোগসাজোসে যৌতুকের দাবিতে তার স্ত্রী রিমা বেগমকে প্রচন্ডরকম শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করত। যৌতুকের জন্য স্ত্রী’র কাছে ১ লাখ টাকা দাবি করলে শশুর বাড়ীর লোকজন মেয়ে সুখ শান্তির কথা চিন্তা করে দাবিকৃত টাকা দেয়। টাকা দেয়ার পর ১/২ বছর ভালোভাবে সংসার করে। পরে মিজান বেপারী তার পরিবারের কু-প্ররোচনায় ঘের ও মুরগীর ফার্ম করার জন্য আরও ২ লাখ টাকা টাকা যৌতুক দাবি করে। কিন্তু স্ত্রী রিমা বেগম সে টাকা এনে দিতে অস্বীকার করলে স্বামী ও শশুর বাড়ীর লোকজন তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়।

গত ২১ সেপ্টেম্বর মোঃ মিজান বেপারী(২৮), তার স্ত্রী রিমা বেগমের সাথে ব্যাপক জগড়া বিবাদে লিপ্ত হয়। জগড়া বিবাদের একপর্যায়ে ২২ সেপ্টেম্বর যৌতুকের দাবিতে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে রিমা বেগমকে মারধর করে ওড়না দিয়ে তার গলায় ফাঁস লাগিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে বসত বাড়ীর পাশে আম গাছের সাথে ঝুলিয়ে রাখে।

২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী-২০০৩) এর ১১(ক)/৩০ ধারায় এ সংক্রান্তে বরিশাল জেলার উজিরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের হয় করা হয়। পরবর্তীতে ভিকটিমের পরিবার উক্ত হত্যাকারীকে গ্রেফতারের জন্য র‌্যাবের সহায়তা কামনা করলে বরিশাল র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নের একটি বিশেষ আভিযানিক দল শিবপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে প্রধান আসামী মোঃ মিজান বেপারী(২৮) এবং সহযোগী আসামী মোছাঃ আকলিমা বেগম(৫০)কে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে উজিরপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরো দেখুন

আরও সংবাদ