মোট দেখেছে : 164
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

ইতালিতে করোনাভাইরাসে ২৪ ঘন্টায় রেকর্ড ৬২৭ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক সৃষ্টি ডেস্ক


 

ইতালিতে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় ৬২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ইতালিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪ হাজার ৩২ জনে। এছাড়াও কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৫ হাজার ৯৮৬ জন। এ নিয়ে সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৭ হাজার ২১ জন। 


এর আগে, গত বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ)  করোনায় মৃত্যুর সংখ্যায় চীনকে ছাড়িয়ে যায় ইতালি। সেদিন দেশটিতে প্রাণ হারিয়েছিলেন ৪২৭ জন করোনা আক্রান্ত রোগী। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সেটাই ছিল যেকোনও দেশের জন্য একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। এর আগে গত বুধবার প্রাণ হারিয়েছিলেন ৪৭৫ জন। তবে শুক্রবার (২০ মার্চ) ইতালির মুত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়েছে গেল।


জানা গেছে, ইউরোপের দেশটিতে এখনও ৩৭ হাজার ৮৬০ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এদের মধ্যে অন্তত ২ হাজার ৬৫৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন প্রায় ৫ হাজার ১২৯ জন। ইতালির প্রদেশ লুম্বারদিয়ায় মৃতের শতকরা হার ৬৭ ভাগ। দেশটিতে নারীদের তুলনায় বেশি মারা যাচ্ছেন পুরুষরা। পুরুষ ও নারীদের মৃতের শতকরা হার পুরুষ ৬২ ভাগ ও নারী ৩৮ ভাগ। ইতালিতে ৪০ বছরের নীচে মারা গেছেন মাত্র ২ জন। 


এদিকে, করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা দিয়ে গিয়ে ইতালিতে এখন পর্যন্ত ১৩ চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। 


গিম্বে হেলথ ফাউন্ডেশনের তথ্যমতে, দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসাকর্মীর সংখ্যা মোট আক্রান্তের ৮ দশমিক ৩ শতাংশ। হাতে গ্লাভস না পরাসহ অন্যান্য অসচেতনতার কারণে ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। 


প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এই রোগে সারাবিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ৫৬ হাজার ৮০২ এবং মারা গেছেন ১০ হাজার ৫৪০ জন। শুধুমাত্র চীনেই আক্রান্ত হয়েছেন ৮০ হাজার ৯৬৭ এবং মারা গেছেন তিন হাজার ২৪৮ জন।



গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের উহানে প্রথমবারের মতো শনাক্ত হয় নভেল করোনাভাইরাস। এরপর এই ভাইরাসে বিশ্বের ১৭৩ টি দেশ ও অঞ্চলে হানা দিয়েছে।  এ পর্যন্ত সেখানে মারা গেছেন ৩ হাজার ২৪৮ জন, আক্রান্ত হয়েছেন ৮০ হাজার ৯৬৭ জন। 


চীনে মহামারি আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাস সংক্রমণ শুরুর পায় দুই মাস পর গত ২১ ফেব্রুয়ারি ইতালিতে হানা দেয়। এরপর মাত্র একমাসের মধ্যেই মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে দেশটি।

আরো দেখুন

আরও সংবাদ