মোট দেখেছে : 244
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

মেয়াদ শেষে চসিকে বর্তমান মেয়রের থাকার সুযোগ নেই: এলজিআরডি মন্ত্রী

আগামী ৫ আগস্ট চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) বর্তমান পর্ষদের মেয়াদ শেষ হবে।এর পরে ওই পদে বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনে আর থাকার সুযোগ নেই। ৫ আগেস্টর আগেই সেখানে প্রশাসক নিয়োগ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।


মন্ত্রী রবিবার বলেন, চসিকের প্রশাসক পদে আমরা শিগগিরই অতিরিক্ত সচিব পদ মর্যাদার ৩ জনের নাম প্রস্তাব করে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে পাঠাবো। প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিলেই প্রশাসকের নাম গেজেট আকারে প্রকাশ করা হবে। ৫ আগস্টের আগেই এই প্রশাসক নিয়োগ সম্পন্ন হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।


সূত্রমতে, সংশ্লিষ্ট আইনে সিটি করপোরেশনের বর্তমান পর্যদের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে নতুন নির্বাচনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তবে গত ১৪ জুলাই করোনা মহামারীর কারণে নতুন নির্বাচন সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আইন অনুযায়ী সরকার সিটি করপোরেশনে অন্তর্র্বতীকালীন প্রশাসক নিয়োগ দেবে। ফলে ৫ আগস্টের পর সিটি করপোরেশন ও নগরের ৪১টি ওয়ার্ড কীভাবে পরিচালিত হবে, কে দায়িত্বে থাকবেন, তা নিয়ে জল্পনা চলছে।


স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, আইন অনুযায়ী অন্তর্বর্তীকালীন প্রশাসককে সহযোগিতায় কিছু সদস্য নিয়োগ করা হবে। তারাই সিটি করপোরেশন ও ৪১টি ওয়ার্ড পরিচালনা করবেন। তাছাড়া সিটি করপোরেশন ও ওয়ার্ড অফিসে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীও রয়েছেন।


২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল চসিকের বর্তমান পর্ষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৪ লাখ ৭৫ হাজার ৩৬১ ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন। ৬ মে শপথ এবং ২৬ জুলাই তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এরপর ৬ আগস্ট প্রথম সাধারণ সভা করেন মেয়র। 


আইন অনুযায়ী, প্রথম সাধারণ সভা থেকে পরবর্তী ৫ বছর পর্ষদের মেয়াদ এবং সেই হিসাবে আগামী ৫ আগস্ট শেষ হবে। মেয়র ছাড়াও চসিকে বর্তমানে ৪১ জন সাধারণ ও ১৪ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর দায়িত্বে রয়েছেন।

আরো দেখুন

আরও সংবাদ