মোট দেখেছে : 172
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

খেলোয়াড় কিংবা রেফারির আশেপাশে কাশি দিলেই ‘লাল কার্ড’

করোনা মহামারির দিনগুলোতে ম্যাচে ফুটবলারদের কাশি ,থুথু ছিটানোকে 'গুরুতর অপরাধ' হিসেবেই দেখা হবে। প্রতিপক্ষ খেলোয়াড় কিংবা রেফারির আশেপাশে দাঁড়িয়ে কাশি দিলেও ছিটকে পড়তে হবে ম্যাচ থেকে। হাতে একেবারে লাল কার্ড ধরিয়ে দেবেন ম্যাচ রেফারি! আগামী মৌসুমের জন্য এমন নিয়মই করতে যাচ্ছে ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বা এফএ।

করোনাভাইরাসের প্রভাবে নিয়মকানুনে বেশ পরিবর্তন এসেছে। চার মাস ঘরবন্দী থাকার পর মাঠে খেলা গড়ালেও খেলোয়াড়দের হাতে ধরিয়ে দেয়া হয় নানা বিধি-নিষেধের লম্বা তালিকা। সেই তালিকা মেনেই ইপিএল, লা লিগা, সিরিআ, বুন্দেসলিগা হয়েছে। শেষ হয়েছে এফএ কাপও। বিরতি কাটিয়ে আবারো শুরু হচ্ছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগও। তবে করোনা শঙ্কা যেহেতু এখনো কাটেনি, আগামী মৌসুম থেকে আরো সতর্ক হচ্ছেন আয়োজকরা। এবার যেমন ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন- এফএ জানিয়ে দিয়েছে, আগামী মৌসুমে কি কি নিয়ম প্রণয়ন করতে যাচ্ছে তারা!

এফএ'র নতুন নিয়ম অনুযায়ী, মাঠে কেউ প্রতিপক্ষ খেলোয়াড় কিংবা ম্যাচ রেফারি অথবা ম্যাচ অফিশিয়ালদের কারো মুখের ওপর কিংবা কাছাকাছি দূরত্ব থেকে কাশি দিলে তাৎক্ষণিকভাবে তাকে লাল কার্ড দেখাতে পারবেন ম্যাচ রেফারি। কোনো খেলোয়াড় ইচ্ছেকৃতভাবে এই কাজ করলেই এমন শাস্তি দেয়া হবে তাকে। 

অবশ্য কেউ যদি অনিচ্ছাকৃতভাবে এই কাজ করেন সেক্ষেত্রে ম্যাচ রেফারি তাকে হলুদ কার্ড দেখাতে পারেন। কিংবা ওই খেলোয়াড়ের আচরণের ওপর নির্ভর করে তাকে শুধু সতর্ক করেই ছেড়ে দিতে পারেন। এছাড়াও মাঠে থুথু ফেলার ওপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হচ্ছে। কেউ যদি মাঠে ইচ্ছেকৃত থুথু ফেলেন সেক্ষেত্রে তাকেও শাস্তি দিতে পারবেন ম্যাচ রেফারি। যদিও এটিকে 'শাস্তিযোগ্য অপরাধ' মনে করেনা এফএ। 

শাস্তি দেয়ার বিধান রেফারির হাতে তুলে দেয়া হচ্ছে এর মানে এই নয় যে, তিনি সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী। তারও আছে দায়িত্ব। ম্যাচ শুরুর আগে অবশ্যই খেলোয়াড়দেরকে এই বিষয়ে সচেতন করতে হবে ম্যাচ রেফারিকে।এছাড়া ম্যাচে ৪ জনের পরিবর্তে ৫ জনকে বদলি নামানোর প্রস্তাবে রাজি হয়েছেন কর্তাব্যক্তিরা। আগামী মৌসুমে ইংল্যান্ডের সবধরণের ফুটবল টুর্নামেন্টে এই নিয়মগুলো মানা হবে। 



আরো দেখুন

আরও সংবাদ