মোট দেখেছে : 182
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক শিশু আদালতে !

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ 


গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামে ৫ বছরের কন্যা শিশুকে ধর্ষণের অপরাধে  ৯ বছর বয়সি খোরশেদ আলম কে ধর্ষণ মামলার আসামী করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। খোরশেদ স্থানীয় আলোকবর্তিকা স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র বলে জানা যায়।



মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, দুর্গাপুর গ্রামের খাদেমুল ইসলামের ছেলে খোরশেদ আলম (৯)  ১২ সেপ্টেম্বর দুপুরে সহপাঠী  শুভ, নিহাতসহ ওই শিশুটির সাথে খেলাধুলার এক পর্যায়ে একটি নির্মাণাধীন বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় শিশুটির চিৎকারে খোরশেদ পালিয়ে যায় বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়। এ ঘটনায় সাঘাটা থানায় বৃহস্পতিবার মামলা দায়ের করা হলে পুলিশ খোরশেদকে তার বাড়ি থেকে আটক করে আদালতে পাঠায়।


এ ব্যাপারে খোরশেদ ব্যাপারীর বড় ভাই আব্দুল খালেক বলেন, বিষয়টি সাজানো। সামাজিক ও অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করতে তাদের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সাঘাটা থানার ওসি মো. বেলাল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় সাঘাটা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হলে খোরশেদ আলমকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।


আসামী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মঞ্জুর মোর্শেদ বাবু বলেন, বিষয়টি সাজানো। ভিকটিমকে স্থানীয়ভাবে ডাক্তারী পরীক্ষা না করে রংপুরে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টিও প্রশ্নবিদ্ধ। সেই সঙ্গে ৯ বছরের একজন শিশুর ধর্ষণ করার উপযোগি বডি ফিটনেস কতটুকু তা সকলেরই জানা? 

আরো দেখুন

আরও সংবাদ